ফাইভার গিগ ইমেজ কেমন হওয়া উচিত

ফাইভার গিগ ইমেজ কেমন হওয়া উচিত এই বিষয়ে ওয়েবসাইট এবং ইউটিউবে শত শত টিপস কোটি কোটি টিপস আছে। ৫ মাস আগে আমি যখন শুরু করেছিলাম তখন আমি নিজেও  অনেক স্টাডি করেছি। আসলেই মার্কেটে একাউনট খোলার আগে অন্তত এক মাস ভালভাবে স্টাডি করে তারপর ঢুকা উচিত। আমার সবগুলা গিগের ইমেজ আমি নিজেই করেছি।

.
কত সেলার কত কত টেক্সট ইমেজে দিয়ে থাকেন। এই একটা ইমেজ দেখলেন। একদমই  সিম্পল। নীশ এর নাম ছাড়া আর কিছুই নাই। অথচ এই নীশে এই গিগের সেলার টপার। মোট সেল ৩৪৪।
.
আবার এমন সিম্পল ইমেজ হলেই যে সেল ভালো হয় তা একেবারেই ঠিক নয়। ৩-৪ জন সেলার টপে এসেছেন কারন দুই তিনটা কাজ করার পর প্রমাণ করেছেন এরা টপার।
.
আরেকটা কথা হচ্ছে যে, ফাইভার বলে থাকে ইন্টারনেট জগতে ছড়িয়ে দিন আপনার গিগ। হ্যাঁ এটা ঠিক যে, সেই জায়গাগুলোটে আপনার গিগে ক্লিক করে কেউ ফাইভারে চলে আসতে পারে। কিন্তু ছড়িয়ে দিলেই সার্চে রেংক বাড়ে না এটা কিন্তু একেবারেই ঠিক না। কারন রেংক দেয়ার যে ক্রাইটেরিয়া ফাইভার পালন করে তার মধ্যে কত জায়গায় উপস্থিত আছে এই বিষয়টা নেই বললেই চলে।
.
ইমেজ সুন্দর হোক, সেটা ভালো। টেক্সট কম থাকা ভালো। বায়ারের জন্য দেখতে সুবিধা হয়। কারন বায়ার ইমেজের মধ্যে সব কিছু খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখে না। একটা আইডিয়া পেলেই চলে। কোয়ালিটি গ্যারান্টিড ছাপ্পা দিয়েও কোন লাভ নেই।
.
আমি ১৯ এপ্রিল দুইটা নতুন গিগ তোলার পর ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই এবং কোন কাজ করার আগেই সার্চে প্রথম পেজে একটা নতুন গিগ দেখতে পেলাম। অনেক কিছুই ভাবছিলাম। তাই এইটুকু শেয়ার করলাম।

অতি উত্তম ইমেজ, নীশের স্পষ্ট উল্লেখ, পারফেক্ট ডেসক্রিপশন, প্রাইসিং, স্ক্রিনশট,  পিডিএফ, FAQ ইত্যাদিসহ একটা পারফেক্ট গিগ স্যাম্পল এখানে দেখে আসতে পারেন।