ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে বর্তমানে সর্বাধিক জনপ্রিয় ব্লগ পাবলিশিং অ্যাপলিকেশনস এবং শক্তিশালী কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (CMS), যা পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল দ্বারা তৈরিকৃত ওপেন সোর্স ব্লগিং সফটওয়্যার। ওয়ার্ডপ্রেস প্রথম পর্যায়ে একটি ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম ছিল যা পরবর্তীকালে একটি ইঞ্জিন তৈরি করে এবং বিনামূল্যে তা ডাউনলোড করে যেকোনো ব্লগারকে ব্যবহারের সুবিধা দিতে শুরু করে . ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা কোনো প্রকার পিএইচপি, মাইএসকিউএল বা এইচটিএমএল জ্ঞান ছাড়াই একটি প্রোফেশনাল মানের ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব। ম্যাট মুলেনওয়েগ ২০০৩ সালের ২৭শে মে এটি প্রাথমিকভাবে প্রকাশ করেন। জানুয়ারি ২০১২ পর্যন্ত ওয়ার্ডপ্রেস ৩.৪ সংস্করণ ৩ কোটিরও বেশিবার ডাউনলোড হয়েছিল।

বিশেষ বৈশিষ্ট্যঃ

  • সফটওয়্যারটি ওপেনসোর্স এবং বিনামূল্যে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যায়।
  • ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে কোনো প্রকার পিএইচপি এবং এইচটিএমএল জ্ঞান ছাড়াই ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব।
  • প্লাগইন যা ইনস্টল করে ওয়েবসাইটকে আরো সয়ংক্রিয় করে তোলা যায়।
  • ব্লগ পোস্ট ও স্ট্যাটিক পৃষ্ঠা সুবিধা।
  • সমবায়িত ব্লগিং সুবিধা (community blog)
  • এছাড়াও বিনামূল্যে থিম, প্লাগইন্স পাওয়া যায়।
  • কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (সিএমএস) হবার ফলে যেকোন তথ্য সহজেই পরিবর্তন, পরিবর্ধন, সংযোজন বা বিয়োজন করা যায়। অর্থাৎ আপনি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে পারবেন।
  • ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার বান্ধব এবং ব্যবহার প্রণালী খুবই সহজ, সার্চ ইঞ্জিন অফটিমাইজেশেন পদ্ধতি ব্যবহার ইত্যাদি।
  • সার্চ ইঞ্জিন বান্ধব।

কেনো আমরা শিখবোঃ
যদি আপনি চান অনলাইন ক্যারিয়ার গড়বেন, তাহলে আপনি যে কোন সেক্টরেই কাজ করেন না কেনো, আপনার ওয়ার্ডপ্রেস শিখা থাকলে তা আপনার জন্য বিশাল এক প্লাস পয়েন্ট। তাছাড়া আপনি যদি ওয়েবসাইট বানাতে চান, তাহলে ওয়ার্ডপ্রেস শিখার বিকল্প নেই বর্তমান বাজারে। আর আপনি যদি ওয়েব ডেভেলাপমেন্টে ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে ওয়ার্ডপ্রেস শেখা আপনার জন্য বাধ্যতামূলক। আপনি যদি চান শখের বশে শুধু মাত্র একটা সাধারন ওয়েবসাইট বানাবেন, তাহলেও আপনি ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে পারেন। এতে করে আপনাকে অনেক কঠিন কঠিন কোডিং শেখা লাগবে না। রেডিমেট হাজার হাজার থিম পাওয়া যায় যা দিয়ে আপনি অনাআসেই একটি ওয়েবসাইট বানাতে ও মেইনটেইন করতে পারবেন। আরো ওয়াডপ্রেস বিষয়ে জানতে এখানে ক্লিক করুন।

কাদের জন্য উপযুক্তঃ
যারা কোন ওয়েবসাইট দেখলেই কৌতুহলবশত তা বানাতেও চান তারা এ সেক্টরে বেশ ভালো করে থাকে। আমি বরাবরই বলে আসছি যে, প্রত্যেক কাজ করার জন্য আগ্রহের দরকার হয়। তবে যারা কম্পিউটার কোডিং করতে আগ্রহী তারাই এক্ষেত্রে ভালো করতে পারবে। ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলাপমেন্টে প্রোগ্রামিং করতে হয়। যারা কোড দেখতে পছন্দ করেন না তারা এ সেক্টরে না আসাই ভালো।

মার্কেটের চাহিদা কেমনঃ
বর্তমানে সবচেয়ে বেশি চাহিদা হলো ওয়ার্ডপ্রেস এর। এতে কোন প্রকার সন্দেহ নেই। বিশ্বে প্রতিদিন যত ওয়েবসাইট তৈরি হয় তার বেশিরভাগ তৈরি হয় শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে। তাই আলাদা করে এইটা নিয়ে বর্ননা করার দরকার আছে বলে আমি মনে করি না।ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস বিষয়ে জানতে এখানে ক্লিক করুন

আয় সম্ভাবনা কেমনঃ
ইন্টারন্যাশনাল ষ্টান্ডার্ড অনুযায়ী আপনি এভারেজ মানের একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে ২০০ ডলার থেকে ২০০০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি ২০০-৫০০ ডলারের মধ্যেই হয়ে থাকে। আর এভারেজ মানের একটি ওয়েবসাইটের কাজ শেষ করতে আপনার সময় লাগবে সর্বোচ্চ ৩ দিন। তাহলে বলা যেতে পারে যে, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ভালো জানলে মাসে মাত্র ৩ টি কাজ করলেও ৬০০ ডলার অর্থাৎ ৫০,০০০ টাকা আয় করা খুব একটা কঠিন নয়। জেনে রাখা ভালো যে, আমি ‍শুধু এভারেজ এর কথা বলেছি। তবে একজন ভালো মানের ওয়ার্ডপ্রেস এক্সপার্ট এর আয় এভারেজ ২ হাজার ডলার প্রতি মাসে। তাছাড়া অনেক সময় ই আপনি টুকটাক সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার কাজ পারেন যা করতে হয়তো আপনার মাত্র ১৫ মিনিট লাগবে সবমিলিয়ে কিন্তু আপনার আয় হবে ৩০-১০০ ডলার। এইটি খুব মজার ব্যাপার। তবে ব্যাপার হলো যে, আপনাকে এক্সপার্ট হতে হবে। কোন রকম কাজ শিখে আয় করা সম্ভব নয় এই সেক্টরে।

এর ভবিষ্যৎ কি ?

ওয়ার্ডপ্রেস এর ভবিষ্যৎ আমার মতে উজ্জ্বল। কারণ গুলোও সুস্পষ্ট, প্রথমত, ধীরে ধীরে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগার থেকে একজন ডিজাইনার হবেন কারণ আপনি এইচটিএমএল, সিএসএস শিখবেন। এরপর যখন আপনি পিএইচপি এবং মাইসিকুয়েল শিখবেন নিজেকে ওয়েব ডিজাইনার থেকে ওয়েব ডেভেলপার এর দিকে নিয়ে যাবেন। তার মানে কি দাঁড়াল? আপনি শুরু করলেন ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে, হয়ে গেলেন ওয়েব ডেভেলপার। আর একজন ভাল ওয়েব ডেভেলপার চাহিদা বা মূল্য যাই বলি না কেন, অনেক বেশি। দ্বিতীয়ত, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস সাইট ব্যবহার করে ব্লগিং করে অর্থ ও উপার্জন করতে পারেন। বর্তমান সময়ে সব থেকে আলোচিত বিষয় ফ্রীলান্সিং। ফ্রীলান্সিং মার্কেট গুলোতে একজন ভাল মানের ওয়েব ডেভেলপারের কদর বেশ। আপনি খুব সহজেই ভাল মানের ফ্রীলান্সার হিসেবে নিজেকে একটি জায়গায় নিয়ে যেতে পারবেন। তৃতীয়ত, আপনি যদি কোন আইটি ফার্ম খুলতে চান, তাহলে আপনাকে মেন্টালি সাহায্য করবে, এক জন ডেভেলপার হিসেবে। এর বাহিরেও আর ও অনেক বিষয় আছে যা আমি এখানে আলোচনা করতে চাইছি না। এক কোথায় বলা যায়, ওয়ার্ডপ্রেস এর ভবিষ্যৎ সব থেকে পরিষ্কার এবং সম্ভাবনাময়।

য়েব ডেভেলপমেন্ট বিষয়ে জানতে এখানে ক্লিক করুন

আর্টিকেল ক্রেডিট এবং রিসার্চঃ গুগল এবং wikipedia , shamimhsm.com , webacademy-edu.com.